মাসায়েলে জাহিলিয়া দারস (ইসলাম ও জাহেলিয়াত এর দ্বন্দ)

মাসায়েলে জাহিলিয়াআবূ সুমাইয়া মতিউর রহমান

মাসায়েলে জাহিলিয়া দারস বিষয় সমূহে আমাদের প্রিয় নবী মুহাম্মাদুর রাসূলুল্লাহ্ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম জাহেলী যুগের আরবদের এবং আহলে কিতাব ইয়াহুদী নাছারাদের বিরোধিতা করেছিলেন। নিম্নোক্ত বিষয়গুলি প্রত্যেক মুসলিমের জেনে রাখা অবশ্য প্রয়োজন। কেননা, বিপরীত বস্তু সম্পর্কে জানা থাকলেই কেবল আসল বস্তু চেনা সম্ভব হয়। তবে এখানে সর্বাপেক্ষা ভয়ের ব্যাপার যেটি, সেটি হলো সরাসরি আল্লাহর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আনীত দ্বীন সম্পর্কেই ঈমান না রাখা। আর ঐ সংগে যদি কেউ জাহেলিয়াতের দ্বীনকেই ভালবাসে এবং তার উপরেই ঈমান আনে, তাহলে তো ক্ষতির আর শেষ থাকে না। (আল্লাহ আমাদেরকে রক্ষা করুন)। যেমন আল্লাহ স্বীয় পাক কালামে ইরশাদ করেন

وَالَّذِينَ آَمَنُوا بِالْبَاطِلِ وَكَفَرُوا بِاللَّهِ أُولَئِكَ هُمُ الْخَاسِرُونَ . (سورة العنكبوت : ৫২)
‘যারা বাতিলের উপর ঈমান আনলো এবং আল্লাহর সাথে কুফরী করলো, তারাই সত্যিকারের ক্ষতিগ্রস্ত।’ (সূরা আনকাবুত : ২৯ : আয়াত ৫২)

আর তাই আল্লাহর বিশুদ্ধ তাওহীদের দাওয়াতের প্রয়োজনীয়তা অনুধাবন করে শাইখ মুহাম্মাদ বিন সুলায়মান আত-তামিমি(রাহিমাহুল্লাহ) আল্লাহর তাওহীদের উপর এই অমূল্য গ্রন্থটি রচনা করেন। এতে লেখক (রাহিমাহুল্লাহ) তাওহীদের অর্থ ও ফাযিলত, তাওহীদের বিপরীত শিরক এর প্রকারভেদে এর ভয়াবহতা সহ আরো অনেক বিষয়ে আলোচনা করেছেন। আর এরই ধারাবাহিক আলোচনা দেয়া হল অডিও রুপে।


আগের দারস সমুহঃ ১-৪৪ পরের দারস সমুহঃ ৯০-১২৮
অধ্যায়-৪৫ [ তাক্বদীরের দোহাই দিয়ে আল্লাহর শরীয়াতকে প্রত্যাখ্যান করা ] অধ্যায়-৪৬ [ দাহারিয়া সম্প্রদায় বা বস্তুবাদিতা ] অধ্যায়-৪৭ [ আল্লাহর নি’আমাত অস্বীকার করা ]
অধ্যায়-৪৮,৪৯ [ আল্লাহর আয়াতকে পূরোপুরি অস্বীকার করা .. আল্লাহর আয়াতকে আংশিক অস্বীকার করা] অধ্যায়-৫০ [ আল্লাহ মানুষের উপর কিছুই নাজিল করে নি বলা ] অধ্যায়-৫১ [ আল্লাহর কুর’আনকে মানুষের কথা-বানী বলা ]
অধ্যায়-৫২ [আল্লাহর কাজের ক্ষেত্রে হিকমাতকে অস্বীকার করা] অধ্যায়-৫৩ [রসুল(সঃ) এর কথা কাজ অস্বীকার করা] অধ্যায়-৫৪,৫৫ [ষড়যন্ত্র করা]
অধ্যায়-৫৬ [আল্লাহর তাওহীদকে শিরকে রুপান্তর করা] অধ্যায়-৫৭,৫৮ [ আল্লাহর কিতাবের শব্দ,অর্থ,উদ্দেশ্য পরিবর্তন করা ] অধ্যায়-৫৯ [হক্ব পন্থীদের খারাপ নামে ডাকা]
অধ্যায়-৬০ [আল্লাহর উপর মিথ্যারোপ করা] অধ্যায়-৬১ [সত্যকে মিথ্যায় রুপান্তর করা] অধ্যায়-৬২ [হক্বপন্থীদের নামে শাসক/সরকারের কাছে মিথ্যা নালিশ করা]
অধ্যায়-৬৩ [আল্লাহর উপর মিথ্যারোপ করা] অধ্যায়-৬৪,৬৫,৬৬ [রাষ্ট্রধর্ম পালন] অধ্যায়-৬৭ [নিজে আমাল না করেও প্রশংসা চাওয়া বা করা]
অধ্যায়-৬৮ [সৌভাগ্যবান কি কেন কিভাবে] অধ্যায়-৬৯ [ইবাদাত এর ক্ষেত্রে বাড়াবাড়ি করা] অধ্যায়-৭০ [ইবাদাত এর ক্ষেত্রে কমতি-কাটছাট করা]
অধ্যায়-৭১ [তাকওয়ার অজুহাতে ওয়াজিবকে ত্যাগ করা] অধ্যায়-৭২,৭৩ [আল্লাহর উপর মিথ্যারোপ করা] অধ্যায়-৭৪ [অজ্ঞতার সাথে মানুষকে ইসলামের দিকে ডাকা]
অধ্যায়-৭৫ [জ্ঞান এর সাথে মানুষকে গোমরাহীর দিকে ডাকা] অধ্যায়-৭৬ [জ্ঞান দ্বারা চক্রান্ত করা] অধ্যায়-৭৭ [আল্লাহর দ্বীনের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা -ইয়াহুদীদের নীতি]
অধ্যায়-৭৮ [আল্লাহর ভালোবাসা পরিত্যাগ করে আল্লাহকে ভালোবাসা দাবী করা] অধ্যায়-৭৯ [নিজেকে জান্নাতী মনে করা] অধ্যায়-৮০ [আম্বিয়া ও সতকর্মশিল লোকদের কবরকে ইবাদাতখানায় পরিণত করা]
অধ্যায়-৮১ [কবর মাজার সংক্রান্ত জাহেলিয়াত -১] অধ্যায়-৮২,৮৩ [কবর মাজার সংক্রান্ত এতেকাফ] অধ্যায়-৮৪ [কবর কেন্দ্রীক কুরবানী]
অধ্যায়-৮৫ [প্রত্নতত্ত্ব নিদর্শন নিয়ে জাহিলিয়াত] অধ্যায়-৮৬ [] অধ্যায়-৮৭ []
অধ্যায়-৮৮ [] অধ্যায়-৮৯ [রাশিফল+নক্ষত্রের মাধ্যমে রিজিক চাওয়া] অধ্যায়-৯০ [বিদ্রোহ করাকে সম্মানজনক মনে করা]
আগের দারস সমুহঃ ১-৪৪ পরের দারস সমুহঃ ৯০-১২৮